Thursday, February 22, 2024

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমকুরআন ও হাদীসআসুন, আজ কুরআনুল কারীমের একটি আয়াত শিখি।

আসুন, আজ কুরআনুল কারীমের একটি আয়াত শিখি।

তাফসীর সূরা আল লাহাব
আয়াত নং:০৫ فِیْ جِیْدِهَا حَبْلٌ مِّنْ مَّسَدٍ۠

তার গলায় (আবু লাহাবের স্ত্রীর) থাকবে খেজুর ডালের আঁশের পাকানো শক্ত রশি।

তার গলায় বাঁধা রশিটির জন্য (حَبْلٌ مِنْ مَسَدٍ) শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে। অর্থাৎ সে রশিটি হবে ‘মাসাদ’ ধরনের। অভিধানবিদ ও মুফাসসিরগণ এ শব্দটির বহু অর্থ বর্ণনা করেছেন। 
এ সম্পর্কিত একটি বক্তব্য হচ্ছে, খুব মজবুত করে পাকানো রশিকে মাসাদ বলা হয়। দ্বিতীয় বক্তব্য হচ্ছে, খেজুর গাছের (ডালের) ছাল থেকে তৈরি রশি মাসাদ নামে পরিচিত।
তৃতীয় বক্তব্য হচ্ছে, এর মানে খেজুরের ডালের গোড়ার দিকের মোটা অংশ থেঁতলে যে সরু আঁশ পাওয়া যায় তা দিয়ে পাকানো রশি অথবা উটের চামড়া বা পশম দিয়ে তৈরি রশি। আর একটি বক্তব্য হচ্ছে, এর অর্থ লোহার তারের পাকানো রশি।তার গলার জন্য জীদ (جيد) শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে। আরবী ভাষায় যে গলায় অলংকার পরানো হয়েছে তাকে জীদ বলা হয়।

মুফাসসিরগণ উল্লেখ করেন যে, আবু লাহাবের স্ত্রী তার গলায় মহামূল্যবান একটি হাড় পরিধান করতো। সে বলতো এ হার বিক্রি করে আমি এর মূল্য বাবদ পাওয়া সমস্ত অর্থ মুহাম্মাদের (সঃ) বিরুদ্ধে শত্রুতামূলক কাজ করার জন্য ব্যয় করবো। এ কারণে জীদ শব্দটি এখানে ব্যবহার করা হয়েছে প্রতিবাদ স্বরূপ। 
অর্থাৎ এ অলংকার পরিহিত সুসজ্জিত গলায়, যেখানে পরিহিত হার নিয়ে সে গর্ব করে বেড়ায়, কিয়ামতের দিন সেখানে রশি বাঁধা হবে। এটা ঠিক সমপর্যায়েরই বিনিময় মূলক বক্তব্য।
যেমন কুরআনের বিভিন্ন স্থানে বলা হয়েছেঃ
 بَشِّرْهُمْ بِعَذَابٍ أَلِيمٍ 
“তাদেরকে যন্ত্রণাদায়ক আযাবের সুসংবাদ দাও।” 

শিক্ষা ও প্রায়োগিক ক্ষেত্র:

০১. যারা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম এর সাথে শত্রুতা করে, ঠাট্টা বিদ্রুপ করে,  অতীতেও তারা ধ্বংস হয়েছে । ভবিষ্যতেও হবে এবং আখেরাতে তাদের চূড়ান্ত পরিণাম জাহান্নাম।
০২. ঈমান ও নেক আমল না থাকলে ধন-সম্পদ , মান- সম্মান, ক্ষমতা , প্রভাব-প্রতিপত্তি, সন্তাান সন্ততি কোন কাজেে আসবে না।
০৩.সফলতা শুধু তাদের জন্যই যারা নিজেদের জীবনকে আল্লাাহর আদেশ-নিষেধ ও রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর আদর্শের ভিত্তিতে গড়ে তুলেছে , এবং তার উপর অবিচল থেকেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

13 − one =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য