Wednesday, May 22, 2024
No menu items!

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমদৈনন্দিন খবরডেঙ্গু প্রতিরোধে বাজারে এলো বেক্সিমকো ফার্মার নোমস

ডেঙ্গু প্রতিরোধে বাজারে এলো বেক্সিমকো ফার্মার নোমস

অনলাইন রিপোর্টার ॥ ডেঙ্গুসহ মশাবাহিত রোগ থেকে দীর্ঘসময় সুরক্ষা দিতে নতুন মসকিটো রিপেল্যান্ট ক্রিম ‘নোমস’ বাজারে এনেছে বেক্সিমকো ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড।

জার্মানি থেকে উৎপাদিত নোমস ক্রিমে ব্যবহৃত সক্রিয় উপাদান ডেঙ্গু জীবাণুবাহী এডিস মশা, চিকুনগুনিয়া ও জিকার বিরুদ্ধে প্রায় ৯৯ শতাংশ কার্যকর। এই ক্রিম একবার ব্যবহার করলে ৮ ঘণ্টা পর্যন্ত সুরক্ষিত থাকা যাবে। পরিবেশবান্ধব এই ক্রিমটি মশা ছাড়াও মাছি, ডাঁশ, ছারপোকা, উকুন, ভিমরুলসহ বিভিন্ন ধরনের পোকামাকড় থেকে সুরক্ষা দিবে।

নোমস ক্রিমে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) এবং ইউএস এনভায়রনমেন্ট প্রোটেকশন এজেন্সি (ইপিএ) অনুমোদিত প্রকৃতি থেকে অনুপ্রাণিত উপাদান ইথাইল বুটিলেসমিনোপ্রপিওনেট বা ‘আইআর৩৫৩৫’ ব্যবহার করা হয়েছে।

এ উপাদানটি বিশ্বব্যাপী ত্রিশ বছরেরও বেশি সময় ধরে দুর্দান্ত সুরক্ষার রেকর্ড বজায় রেখে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এছাড়া প্রচলিত মসকিটো রিপেল্যান্ট ক্রিমে ব্যবহৃত ‘ডিট’ এবং অ্যালকোহল নোমসে ব্যবহার করা হয়নি। ফলে দুই মাসের শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সীদের ব্যবহারের জন্য নোমস নিরাপদ।

দেশজুড়ে বিশেষত রাজধানী ঢাকায় সম্প্রতি ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। ডেঙ্গু সহ বিভিন্ন মশাবাহিত রোগ থেকে সুরক্ষা দিতেই নোমস মসকিটো রিপেল্যান্ট ক্রিমটি বাজারে এনেছে বেক্সিমকো ফার্মা। ক্লিনিক্যালি প্রমাণিত নোমস দীর্ঘসময় ধরে এডিস মশার বিরুদ্ধে কার্যকর সুরক্ষা দেয় এবং ডেঙ্গু প্রতিরোধে অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা রাখে। দেশব্যাপী সকল ফার্মেসি এবং কেমিস্ট শপগুলোতে এ ক্রিমটি পাওয়া যাচ্ছে। ক্রিমটির খুচরা মূল্য রাখা হয়েছে ১২০ টাকা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

4 × 2 =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য