Wednesday, May 22, 2024
No menu items!

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমদৈনন্দিন খবরপশ্চিম তীর থেকে ইহুদি বসতি সরানোর আদেশ ইসরায়েলি সুপ্রিম কোর্টের

পশ্চিম তীর থেকে ইহুদি বসতি সরানোর আদেশ ইসরায়েলি সুপ্রিম কোর্টের

ফিলিস্তিনিদের ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি দখল করে পশ্চিম তীরে যেসব ইহুদি বসতি গড়ে উঠেছে সেগুলো সরিয়ে ফেলার আদেশ দিয়েছে ইসরায়েলের সুপ্রিম কোর্ট।

বৃহস্পতিবার ক্ষতিগ্রস্ত ফিলিস্তিনিদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৮ সালে জেলা আদালতের দেওয়া রায়কে বাতিল করে নতুন এই রায় দেন ইসরায়েলের সর্বোচ্চ আদালত। খবর আলজাজিরার।

খবরে বলা হয়, ফিলিস্তিনিরা পশ্চিম তীরকে তাদের ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রের অংশ হিসেবেই চায়। ওখানে ৩০ লাখ ফিলিস্তিনি বসবাস করেন। তাদের মধ্যে বসতি গড়ে তুলেছে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ ইসরায়েলি।

জানা গেছে, জেলা আদালত যখন ফিলিস্তিনিদের জমির ওপর বসতি স্থাপনকারীদের আইনগত অধিকার দিয়েছিলেন, তখন তাদের এটা জানা ছিল না যে, মূল মানচিত্রে এসব জমি ফিলিস্তিনিদের হিসেবে দেখানো হয়েছে। জর্ডান উপত্যকায় একটি পাহাড়ের চূড়ায় ২০ বছর আগে বসতি স্থাপন করা ৪০টি পরিবার রয়েছে, যাদের বেশিরভাগই ফিলিস্তিনিদের মালিকানাধীন প্লটে বাস করে।

তাদের দাবি, তারা সেখানে বাস করার জন্য ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষের অনুমোদন পেয়েছে। তবে সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ কাজটি অন্যায্যভাবে করেছে এবং তারা ফিলিস্তিনিদের ন্যায্য মালিকানাকে উপেক্ষা করেছে।

প্রসঙ্গত, সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্কের পর ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী তার পূর্বপরিকল্পিত পশ্চিম তীরে বসতি দখল স্থগিত রাখার ঘোষণা দেন। তবে একই সঙ্গে তিনি ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যমগুলোতে বলেন যে, বসতি নির্মাণ স্থগিত করা হয়েছে, কিন্তু বাতিল করা হয়নি। এরপরই বৃহস্পতিবার এ রায় দিল ইসরায়েলি সর্বোচ্চ আদালত।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

five × two =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য