Wednesday, June 19, 2024
No menu items!

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমনিবন্ধবাস্তববাদিতা বনাম আপোষকামীতা

বাস্তববাদিতা বনাম আপোষকামীতা

দামাদামি আমি খুব একটা ভালো পারি না। কেনাকাটার সময় দেখা যায় দামাদামিতে ‘ওস্তাদ’ কাউকে খুজছি। তবে অল্প জানাশোনাতেও এতোটুকু বুঝি যে, দামাদামি করার সময় হাতে কিছুটা দাম রেখে দিতে হয়। উদাহরণ দেই। ধরুন ক্রেতা দাম হাকলো ২০০০। কিন্তু আপনি সর্বোচ্চ ১৫০০ টাকা দিতে রাজি। এখন আপনি যদি বলেন, ‘ভাই ১৫০০ রাখেন’, তাহলে দেখা যাবে শেষ পর্যন্ত ১৬০০/১৭০০ টাকায় জিনিসটা কিনতে হচ্ছে। দামাদামি করে ১৫০০ তে কিনতে হলে আপনাকে বলতে হবে ‘ভাই ১০০০ রাখেন’, কিংবা ‘১২০০ রাখেন’।
.
এই যে আপনি সর্বোচ্চ ১৫০০ দিতে রাজি, ইকোনমিক্সে এটাকে বলা হয় ক্রেতার রিসার্ভেইশান প্রাইস। দামাদামির সময় কখনো রিসার্ভেইশান প্রাইস থেকে শুরু করতে হয় না। বিক্রেতাও যদি ১৫০০ তে বিক্রি করতে চায় তাহলে ২০০০ কিংবা ২৫০০ থেকে দাম বলা শুরু করে। একটু দাম হাতে রেখে বলতে হয়।
.
তবে দামাদামির এই মেকানিজমকে ম্যানিপুলেট করার বিভিন্ন টেকনিক আছে। যেমন নিলামের অনেক সময় এমন কিছু লোক ঠিক করা থাকে যাদের কাজ হল প্রথমেই স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশি দাম বলা। এভাবে প্রথম থেকেই নিলামের দামটাকে একটা নির্দিষ্ট রেইঞ্জে নিয়ে আসা যায়। কোরবানির হাটেও এটা হয়, ভুক্তভোগীদের নিশ্চয় জানা আছে।
.
এই বিষয়টা মোটা দাগে পলিটিক্সেও খাটে। রাজনৈতিক দামাদামির সময়ও হাতে কিছু রেখে বলতে হয়। ধরুন, ‘ক’ অঞ্চলের জনগণ ‘খ’ অঞ্চলের শাসন থেকে মুক্তি চায়। অনেকে বুঝতে পেরেছে মুক্তির একমাত্র উপায় স্বাধীন হওয়া। পরিস্থিতি, সীমাবদ্ধতা ইত্যাদি মিলিয়ে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ হয়তো সরাসরি স্বাধীনতার ঘোষণা দিতে পারবে না, কিন্তু ছাত্রনেতা, সাধারণ জনতার মুখে মুখে স্বাধীনতার স্লোগান থাকবে। পতাকা থাকবে। মানুষের মনে, মুখে স্বাধীনতার কথা থাকবে। আর এটা রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে দরকষাকষির সুযোগ দেবে। তারা চাইবে স্বাধীনতার কথা বলে অন্তত ক্ষমতার সুষম বন্টনের প্রক্রিয়া চালু করার।
.
কিন্তু রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ যেহেতু স্বাধীনতার ঘোষণা দিতে পারবে না, তাই ছাত্রজনতাও যদি আগে থেকেই এক লাইন বেশি বুঝে শুধু ক্ষমতার বন্টনের কথা বলতে শুরু করে এবং স্বাধীনতার কথা বেমালুম ভুলে যায়, তাহলে কী হবে? আলটিমেটলি স্বাধীনতা/বিচ্ছিন্ন হবার পুরো বিষয়টা চাপা পড়ে যাবে। অন্যদিকে ক্ষমতার বন্টনও হবে না, অল্প কিছু আলোচনা আলঙ্কারিক দাবি হয়তো আদায় হবে।
.
আগে একবার বলেছিলাম, আমাদের এখানে যারা ‘প্র্যাগম্যাটিক’ চিন্তা করার কথা বলেন তাদের অধিকাংশ আসলে ‘শর্টটার্ম’ লাভক্ষতির হিসেবকে প্র্যাগম্যাটিক/বাস্তববাদি চিন্তা মনে করেন। যেমন, অনেকে বলছেন অমুক প্ল্যাটফর্মের, অমুক অমুক ব্যক্তিবর্গের অনেক সীমাবদ্ধতা আছে, তারা সরাসরি শাসন ব্যবস্থার ব্যাপারে কিংবা কোন নির্দিষ্ট বিষয়ে শরীয়তের হুকুম স্পষ্টভাবে বলতে পারবে না। আপাতত এসব দিকে কোন অর্জনের সম্ভাবনাও নেই, তাই যেটা রিয়েলিস্টিকালি পাওয়া যাবে আমরা শুধু ওটা নিয়েই কথা বলি।
.
এই চিন্তার সমস্যা হল, এই ধরণের ‘বাস্তববাদিতা’ প্রয়োগ করতে গেলে যেটা আদর্শ এবং সঠিক অবস্থান সেটাকেই আলোচনা এবং জনমন থেকে বিদায় করে দেয়া হবে। কোন প্ল্যাটফর্ম, কোন ব্যক্তিবর্গ তাদের সীমাবদ্ধতার কারণে অল্প কিছুটা বলবেন, কিছুটা বলতে পারবেন না। এতে সমস্যা নেই। মানুষ বুঝবে তাদের সীমাবদ্ধতা আছে। যা আদর্শ, যা আবশ্যক সেটা তারা করতে পারেন না। সীমাবদ্ধতা নিয়ে অল্পস্বল্প কিছুটা চেষ্টা করেন। কিন্তু সঠিক অবস্থান কোনটা সেটা মানুষের কাছে পরিষ্কার থাকবে।
.
কিন্তু যদি সবাই মিলে আপোষের অবস্থান – রিসার্ভেইশান প্রাইস – নিয়েই আলোচনা করে তাহলে মূলোমুলি শেষ ফলাফল হবে – ছাড় দেয়া অবস্থানকে সঠিক, ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থান মনে হচ্ছে। আর যেটা সঠিক, আদর্শ, আপোষহীন অবস্থান, সেটাকে মনে হচ্ছে ‘বেশিবেশি। এটাই ঢালাওভাবে আমজনতার সামনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে যাবে। যেটা আদর্শিকভাবে একটা বিপর্যয়। তাছাড়া ‘ছাত্রজনতা’ যখন ‘গরম’ থাকে, তখন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দেরও জন্যও পলিটিকাল ম্যানিউভারিং সহজ হয়। ঐ যে আপনার রিসার্ভেইশান প্রাইস ১৫০০ হলে আপনি কাঁটায়কাঁটায় ১৫০০ থেকে শুরু করতে পারবেন না। হাতে কিছুটা রেখে শুরু করতে হবে।
.
এটা কেবল স্বাভাবিক দুনিয়াবি হিসেবনিকেশের কথা। শরীয়াহর জায়গা থেকে বিষয়গুলো আরও অনেক বেশি স্পষ্ট। কাজেই আমাদের ভাইরা বাস্তববাদি হবেন এতে সমস্যা নেই, কিন্তু কোনটা সত্যিকারের বাস্তববাদিতা আর কোনটা আপোষকামীতার মনোভাব শেকড় গেড়ে বসার ফল, সেটা বোঝাটা জরুরী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

one × 4 =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য