Sunday, March 3, 2024

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমদাওয়ামাসজিদেই প্রশান্তি

মাসজিদেই প্রশান্তি

প্রশান্তি আল্লাহ্‌ আ’লার দানের এক অনুপম উপভোগ্য রিজিক। আল্লাহ্‌ তা’আলা যাকে দুনিয়ায় শান্তিতে রাখতে চান তার মননে তাঁর সবটকু প্রশান্তি ঢেলে দেন। আখিরাতের প্রশান্তি যে আরও কত উপভোগ্য হবে তা দুনিয়ার বিবেচনায় কেউই ধারণা করতে পারবে না। আখিরাতের উপভোগ্য প্রশান্তির বর্ণনা দিতে গিয়ে রাসুল (সঃ) বলেন,  আবু সাঈদ খুদরী রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন: জান্নাতের মধ্যে এমন নেয়ামত রয়েছে  যা কোন চক্ষু কোন দিন দেখেনি, কোন কান কোন দিন শুনেনি, কোন অন্তর কোন দিন কল্পনাও করেনি” । সহি আল জামী ৪২৪৬।

আজ আমাদের আলোচ্য বিষয় দুনিয়ার প্রশান্তি আমরা কি ভাবে লাভ করতে পারি। মনে রাখতে হবে দুনিয়ার জীবনে সুখানুভূতি আর প্রশান্তি এক জিনিস নয়। সুখানুভূতি সাময়িক এবং আপেক্ষিক। কল্পনা জগতেও যার অবস্থান অনেকটা দখল করে থাকে, একজন আপনাকে সমীহ করে, ভাবতে ভালই লাগে, ছেলে ভাল ভাবে পরীক্ষায় পাশ করেছে, সে সময় আপনার সাময়িক একটু ভাল লাগবে কিন্তু তা ক্ষণস্থায়ী। সময়মত বেতন পেলে সাময়িক সুখ অনুভূত হবে, শরীরের কোন যন্ত্রনা উপশম হলে মন একটু ফুরফুরে আমেজ বোধ করবে। খাদ্য গ্রহণে মুখের স্বাদ কিছুক্ষণ লেগে থাকে, ইত্যাদি ইত্যাদি।

প্রশান্তির বিষয়টা সম্পূর্ণ ভিন্ন। এই আমেজ কক্ষনো হারিয়ে যায় না, বরং এক ঐশ্বরিক বিশ্বাস অবচেতন ভাবে আপনাকে পরিপূর্ণতা দান করে সার্বিকভাবে জীবনকে অর্থবহ করে তোলে। প্রশান্ত হৃদয় মৃত্যুভয়কে পর্যুদস্ত করে দেয়। দুনিয়ার জীবনে পূর্ণতায় ভরে যায়। আত্মকেন্দ্রিক এক ভাল লাগা কাজ করে। এখন প্রশ্ন কি করলে তা পাওয়া যায়,

দুঃখী মানুষকে তার প্রযোজন মিটিয়ে দেন, দেখেন আপনার আত্মা পরম প্রশান্তি বোধ করছে। ভাবলেই ভাল লাগে। বাবা মায়ের খেদমত করে দেখেন আত্মা প্রশান্তি লাভ করবে। কোন অন্যায় প্রতিহত করে দেখেন, মন প্রশান্তি লাভ করবে। মানুষের কাছে বিনয় হউন, নফসের গোলামী থেকে বেঁচে থাকুন, দেখবেন প্রশান্তি লাভ করবেন। ধৈর্য ও সবরের উপর অনুশীলন করুন, আল্লাহ্‌র নৈকট্য লাভের চেষ্টা করুন, আনুগত্য করুন, তওবা করুন, আল্লাহ্‌ বলেন, তোমরা দুনিয়ার জীবনে প্রশান্তি চাও, তাহলে জেনে নাও, যারা আস্থা স্থাপন করেছে আর আল্লাহ্‌র গুণকীর্তনে যাদের হৃদয় প্রশান্ত হয়।’’ এটি কি নয় যে আল্লাহ্‌র গুণগানেই হৃদয় প্রশান্তি লাভ করে? (আল কুরআন ১৩/২৮) সর্বোপরি আল্লাহ্‌র কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করুন, আলহামদুলিল্লাহ, আমি নিশ্চিত আপনার মন ও মনন প্রশান্ত, আর আল্লাহ্‌ বলেন, ওহে প্রশান্ত প্রাণ!তোমার প্রভুর কাছে ফিরে এসো সন্তষ্ট হয়ে, — সন্তোষভাজন হয়ে, (আল কুরআন ৮৯/২৭-২৮)

যে কথা না বললেই নয় তাহলো দুনিয়ায় প্রশান্তির স্থান কোথায়? সর্বোপরি প্রশান্তি প্রাপ্তির স্থান নির্ধারণের বিষয় অতীবও গুরুত্বপূর্ণ। এই দুনিয়ায় মাসজিদ হোল প্রশান্তির সর্বোচ্চ স্থান। আপনি যতক্ষণ সেখানে অবস্থান করবেন, কিছু না করেও সার্বিক আনন্দ উপভোগ করতে থাকবেন। মন প্রফুল্ল চিত্তে আপনাকে এক ঐশ্বরিক সুখে জড়িয়ে রাখবে, বের হলে দেখবেন, কেন আরও কিছুক্ষণ থাকা হোল না। এর বাস্তবতা ও আবেশ শরীরকে দোলায়িত করবে। তাইতো দুই হারাম থেকে মানুষ বের হতে চায় না যদি না প্রকৃতি তাকে তাড়া দেয়। ঐ সময়গুলোতে একাকীত্ব নিয়ে যাবে দূর বহু দূর, যেখানে আপনি পরশ পাবেন সৃষ্টিকর্তার নিপুন সৃষ্টির ও বৈশিষ্টের। তনু মন লুটিয়ে পড়বে আল্লাহ্‌র রাহে, বিনীত সেজদায়। ভাল মানুষের সংজ্ঞাও তাই, ভেবে দেখেন একবার। আর কোথায়ও এত প্রাপ্তির সমাবেশ ঘটবে না, বিশ্বাস করুন।

মাসজিদ পৃথিবীতে সর্বোত্তম জায়গা এবং আল্লাহ্‌ তা’আলার সবচেয়ে প্রিয় স্থান। রাসূল (সাঃ) বলেন―

أحب البلاد إلى الله مساجدها، وأبغض البلاد إلى الله أسواقها. (رواه مسلم : ১০৭৬)

আল্লাহর নিকট সর্বোত্তম জায়গা মাসজিদ এবং সর্ব-নিকৃষ্ট জায়গা বাজার।

ভাবছেন কেন প্রশান্তি মাসজিদে পাওয়া যায়, মাসজিদে নামায আদায় সম্পন্ন করে যতক্ষণ সে নামাযের স্থানে বসে থাকে ততক্ষণ ফিরিশতাবর্গ তার জন্য দুআ করতে থাকে; ‘হে আল্লাহ ওর প্রতি করুণা বর্ষণ কর। হে আল্লাহ! ওকে ক্ষমা কর। আর সে ব্যক্তি যতক্ষণ নামাযের অপেক্ষা করে ততক্ষণ যেন নামাযের অবস্থাতেই থাকে।” (বুখারী ৬৪৭নং, মুসলিম, সহীহ ৬৪৯নং, আবূদাঊদ, সুনান, তিরমিযী, সুনান, ইবনে মাজাহ্‌, সুনান)

প্রশান্তির বিপরীতে আর যা আছে, সবই কণ্টকাকীর্ণ, দুঃসহ, অনৈতিক এবং সার্বিকভাবে আল্লাহ্‌র অভিশাপ। দুনিয়া ও আখিরাতে সবই বরবাদ।

হে আল্লাহ্‌, আমাদেরকে দুনিয়া ও আখিরাতে প্রশান্তি দিয়ে পরিপূর্ণ করে দিন, আমিন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

5 × 5 =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য