Wednesday, May 22, 2024
No menu items!

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমদৈনন্দিন খবরসিনহার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যে যা বললেন তার ভাই

সিনহার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যে যা বললেন তার ভাই

অর্থ পাচারের মামলায় সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এসকে সিনহা) বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন তার বড় ভাই নরেন্দ্র কুমার সিনহা। ভাইয়ের পর সাক্ষ্য দেন সিনহার ভাতিজা শঙ্খজিৎ সিনহা।

নরেন্দ্র কুমার সিনহা সাক্ষ্যে বলেন, আমার ভাই এসকে সিনহার নির্দেশে আমি ও শঙ্খজিৎ শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের উত্তরা শাখায় একটি যৌথ হিসাব খুলতে যাই।

সেখানে একজন কর্মকর্তা আগে থেকেই সবকিছু তৈরি করে রেখেছিলেন। যাওয়ার পর শুধু আমাদের স্বাক্ষর রাখা হয়। এরপর একটি চেকবইয়ের সব পৃষ্ঠায় দুজনের স্বাক্ষর রাখা হয়। পরে আমরা বাড়ি ফিরে যাই এবং পরবর্তীকালে জানতে পারি ঐ হিসাবের মাধ্যমেই অভিযোগের সমপরিমাণ দুই কোটি ২৩ লাখ ৫৯ হাজার টাকা লেনদেন হয়।

সোমবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম এই জবানবন্দি গ্রহণ করেন। দুই সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তাদের জেরার জন্য ১৩ জানুয়ারি দিন ধার্য করে আদালত।

ক্ষমতার অপব্যবহার করে ভুয়া ঋণের মাধ্যমে চার কোটি টাকা স্থানান্তর ও আত্মসাৎ করার অভিযোগে গত বছরের ১০ জুলাই সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের মামলা করে দুদক। ঐ বছরের ৯ ডিসেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়।

গত ১৩ আগস্ট আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেয়। এরপরই এই মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। ইতিমধ্যে এ মামলায় ১৮ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ৮ ডিসেম্বর এই দুজনের সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিলো। কিন্তু নরেন্দ্র কুমার সিনহা ও ভাতিজা শঙ্খজিৎ সিনহা সাক্ষ্য দিতে না আসায় তাদের বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করে আদালত। এরপর সোমবার দুজনই সাক্ষ্য দিতে আদালতে হাজির হন।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

three × 3 =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য