Wednesday, June 19, 2024
No menu items!

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমদৈনন্দিন খবরডব্লিউএইচও’র ম্যাপে ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন জুম্মু-কাশ্মির

ডব্লিউএইচও’র ম্যাপে ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন জুম্মু-কাশ্মির

ভারতের মূল ভূখণ্ড থেকে জম্মু–কাশ্মির এবং লাদাখকে আলাদা অংশ হিসেবে দেখানোর অভিযোগ উঠল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিরুদ্ধে। কোন দেশের কোভিড পরিস্থিতি কীরকম, তা বোঝাতে সদ্য একটি ম্যাপ প্রকাশ করেছে ডব্লিউএইচও।

‘‌টাইমস অফ ইন্ডিয়া’র একটি প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, গোটা বিশ্বের যে ম্যাপ ডব্লিউএইচও প্রকাশ করেছে, তাতে ভারতকে গাঢ় নীল রঙ দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। কিন্তু সদ্য তৈরি হওয়া দু’‌টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল জম্মু–কাশ্মির এবং লাদাখকে ‌দেখানো হয়েছে ধূসর রঙ দিয়ে। অন্যদিকে ‘‌বিতর্কিত’‌ আকসাই চীনের এলাকাকে চিহ্নিত করা হয়েছে ধূসর রঙের ওপর নীল স্ট্রাইপ দিয়ে। চীনা ভূখণ্ডকে যে নীল রঙে দেখানো হয়েছে, স্ট্রাইপটিও সেই রঙেরই।

ম্যাপটি প্রথম চোখে পড়ে লন্ডনে কর্মরত এক ভারতীয় আইটি কর্মীর। তিনি ম্যাপটি বিভিন্ন হোয়াটস্‌অ্যাপ গ্রুপে শেয়ার করার পর বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। ‘‌টাইমস অফ ইন্ডিয়া’–কে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ‘আমি দেখে হতভম্ব হয়ে গেছি, ‌ডব্লিউএইচও–এর মতো একটি সংস্থা কীভাবে এই কাজ করতে পারে!‌ আমি জানি, ডব্লিউএইচও–কে বিপুল অর্থ অনুদান দেয় চীন। পাকিস্তানও চীনের থেকে ঋণ নিয়ে থাকে। আমার ধারণা, চীনের কথাতেই এই কাজ করেছে ডব্লিউএইচও।’‌

যদিও ডব্লিউএইচও পুরো বিষয়টি অস্বীকার করেছে। তাদের বক্তব্য, জাতিসঙ্ঘের নিয়ম মেনেই ওই ম্যাপ তৈরি করা হয়েছে।



একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

twelve + 16 =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য