Wednesday, November 29, 2023

আমাদের মুসলিমউম্মাহ ডট নিউজে পরিবেশিত সংবাদ মূলত বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমাহার। পরিবেশিত সংবাদের সত্যায়ন এই স্বল্প সময়ে পরিসরে সম্ভব নয় বিধায় আমরা সৌজন্যতার সাথে আহরিত সংবাদ সহ পত্রিকার নাম লিপিবদ্ধ করেছি। পরবর্তীতে যদি উক্ত সংবাদ সংশ্লিষ্ট কোন সংশোধন আমরা পাই তবে সত্যতার নিরিখে সংশোধনটা প্রকাশ করবো। সম্পাদক

হোমদৈনন্দিন খবরফিলিস্তিনে যুদ্ধাপরাধের তদন্ত শুরু আইসিসির

ফিলিস্তিনে যুদ্ধাপরাধের তদন্ত শুরু আইসিসির

ফিলিস্তিনের এলাকায় সংঘটিত যুদ্ধাপরাধের অভিযোগের তদন্ত গতকাল বুধবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)। তবে আদালতের এই পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল। আর ফিলিস্তিন আইসিসির এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, আইসিসির প্রধান কৌঁসুলি ফাতু বেনসুদা বলেন, ২০১৪ সাল থেকে ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর, পূর্ব জেরুজালেম এবং গাজা উপত্যকার যেসব এলাকা ইসরায়েল দখল করেছে, সেই সব এলাকা এই তদন্তের আওতায় আনা হবে।

২০১৪ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত ২ হাজার ২৫০ জন ফিলিস্তিনি এবং ৭৪ ইসরায়েলের নাগরিক নিহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনের যাঁরা নিহত হয়েছেন, তাঁদের অধিকাংশই বেসামরিক নাগরিক এবং ইসরায়েলের যাঁরা নিহত হয়েছেন, তাঁদের অধিকাংশই সেনা।

এই উদ্যোগ প্রথম নিয়েছিলেন ফাতু বেনসুদা। আগে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে তিনি বলেছিলেন, পশ্চিম তীর, পূর্ব জেরুজালেম ও গাজা উপত্যকায় যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত হয়েছে বা হচ্ছে। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী ও ফিলিস্তিনের সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তোলেন তিনি। তিনি সে সময় বলেছিলেন, ফিলিস্তিনে যা ঘটছে, তা তদন্ত না করার কোনো কারণ নেই। তবে ফাতু বেনসুদা প্রথমে আদালতের কাছে আদেশ চান, ফিলিস্তিনের ভূখণ্ডে সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে বিচার করার এখতিয়ার রয়েছে কি না।

এরপর গত ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) জানান, ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে যেসব অপরাধ সংঘটিত হয়েছে, বিশেষ করে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে বিচারের এখতিয়ার এই আদালতের রয়েছে। এরপর এমন আনুষ্ঠানিক তদন্তের ঘোষণ এল।

এই তদন্ত প্রসঙ্গে ফাতু বেনসদা বলেন, তিনি সতর্কতার সঙ্গে সর্বশেষ পাঁচ বছরের ঘটনাগুলো পর্যবেক্ষণ করেছেন। কোনো ধরনের ভয়ভীতি ছাড়া, নিরপেক্ষ এবং স্বাধীনভাবে তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘দিন শেষে ফিলিস্তিন ও ইসরায়েলের ভুক্তভোগী মানুষেরা আমাদের লক্ষ্য হলো।’

এদিকে বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, আইসিসির এই পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ছাড়া ইসরায়েলের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেছে দেশটি। এ প্রসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেন, ‘তদন্তের যে ঘোষণা তা আমরা দৃঢ়ভাবে নাকচ করছি। আইসিসির কৌঁসুলির ঘোষণায় আমরা হতাশ।’ এ ছাড়া ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এই পদক্ষেপকে ইহুদি বিদ্বেষ বলে আখ্যা দিয়েছেন।

আর ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি বলেন, ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে ইসরায়েলের নেতাদের নেতৃত্বে। এটা এখনো চলছে। এ ছাড়া ফিলিস্তিনের সশস্ত্র সংগঠন হামাস আইসিসির এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

1 − one =

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য